জাহান্নামের বর্ণনা - জাহান্নামের আগুন - জাহান্নামের আজাব

প্রিয় বন্ধুরা আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করা হবে জাহান্নামের বর্ণনা জাহান্নামের আগুন এবং জাহান্নামের আজাব সম্পর্কে। আমরা জানি আল্লাহ মৃত্যুর পরে সকল ব্যক্তিকে জান্নাত এবং জাহান্নাম দিবেন। তাই আমাদের জানা প্রয়োজন জাহান্নামের বর্ণনা জাহান্নামের আগুন এবং জাহান্নামের আজাব সম্পর্কে। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক জাহান্নামের বর্ণনা সম্পর্কে বিস্তারিত।

জাহান্নামের বর্ণনা

জাহান্নামের বর্ণনা জাহান্নামের আগুন এবং জাহান্নামের আজাব সম্পর্কে আজকের এই পোস্ট টিতে আলোচনা করা হবে তাই যারা এ বিষয়ে জানতে চান তারা আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন।

পেজ সূচিপত্রঃ জাহান্নামের বর্ণনা - জাহান্নামের আগুন - জাহান্নামের আজাব 

জাহান্নামের স্তর কয়টি - জাহান্নামের নাম সমূহ

জাহান্নাম হলো মৃত্যুর পরে শাস্তির জায়গা এবং জাহান্নামের আজাব অনেক বেশি। যারা দুনিয়াতে খারাপ কাজ করবে আল্লাহর হুকুম মেনে চলবে না তাদের মৃত্যুর পরে স্থান হবে জাহান্নাম। কিন্তু এই জাহান্নাম এর আবার স্তর আছে বিভিন্ন স্তর অনুযায়ী বিভিন্ন ব্যক্তির জাহান্নামে জায়গা হয়ে থাকবে এবং জাহান্নামের আজাব হয়ে থাকবে। জাহান্নামের স্তর মূলত সাতটি। আশা করি বুঝতে পারলেন জাহান্নামের কয়টি স্তর।

আরো পড়ুনঃ ইসলামে বাজি ধরা কি হারাম - ইসলামে জুয়া খেলার শাস্তি 

এখন জানুন জাহান্নামের নাম সমূহ। জাহান্নামের স্তর হলো ৭ টি এবং জাহান্নামের নাম সমূহ হলো-লাযা,সাক্কার,হুত্বামাহ,জাহীম,সাঈর,হাবিয়াহ,জাহান্নাম।জাহান্নাম এর স্তর অনুযায়ী শাস্তি হবে।জাহান্নামের সর্বনিম্ন স্তরে সবচেয়ে বেশি শাস্তি হবে।আশা করি বুঝতে পারলেন জাহান্নামের নাম সমূহ।এখন চলুন নিচের অংশে জেনে নিন জাহান্নামের বর্ণনা এবং জাহান্নামের বয়ান   

জাহান্নামের বর্ণনা - জাহান্নামের বয়ান

জাহান্নামের স্তর কয়টি এবং জাহান্নামের নাম সমূহ জানতে পারলেন এখন আপনাদের জাহান্নামের বর্ণনা দিবো। জাহান্নামের বর্ণনা হলো জাহান্নাম একটি শাস্তির জায়গা সেখানে শুধু শাস্তি আর শাস্তি।যারা জাহান্নামের সর্বনিম্ন স্তর এর থাকবে তাদের বেশি শাস্তি হবে। জাহান্নামের আগুন অনেক ভয়ংকর। জাহান্নামে শুধু আগুন জ্বলবে আর সেই আগুনের ভেতর জাহান্নামি ব্যক্তিদের নিক্ষেপ করা হবে । জাহান্নামে এতো শাস্তি হবে তবুও কেউ মরবে না।জাহান্নামের শাস্তি এতোই বেশি হবে যে তারা জান্নাতিদের কাছে সাহায্য চাইবে কিন্তু জান্নাতিরা তাকের কে কখনোই সাহায্য করবে না। আশা করি বুঝতে পারলেন জাহান্নামের বর্ণনা সম্পর্কে।  

জাহান্নামের আগুন  

দুনিয়াতে আমরা যে আগুন দিয়ে রান্নার কাজ করে থাকি সেই আগুন এর তাপ কতো তা সবাই জানেন।কেউ যদি আপনাকে দুনিয়ার আগুনে হাত বা পা দিতে বলে তাহলে আপনি কি কখনো দিতে রাজি হবেন। নিশ্চয় হবেন না কারণ কি কারণ হলো আগুনে হাত বা পা দিলে তা পুড়ে ছাই হয়ে যাবে সেই ভয়ে আপনি আগুনে হাত বা পা দিতে পারবেন না। 

রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন দুনিয়াতে যেই আগুন রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয় ওই আগুন এর চেয়ে জাহান্নামের আগুন ৭০ গুন বেশি তাপ হবে। তাহলে এর থেকে বুঝতে পারলেন জাহান্নামের আগুন এ যদি কাউকে নিক্ষেপ করা হয় তার কি অবস্থা হবে। জাহান্নামের আগুন সম্পর্কে জানলেন এখন জানুন জাহান্নামের আজাব কেমন হতে পারে।

জাহান্নামের আজাব

জাহান্নামের বর্ণনা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন জাহান্নামের আগুন কেমন হবে তাও জানলেন এবার জানুন জাহান্নামের আজাব কেমন হতে পারে বা হবে। জাহান্নামের আজাব হবে অনেক ভয়াবহ। জাহান্নামে অনেক ভাবে শাস্তি দেওয়া হবে যারা দুনিয়াতে মূর্তি বা যেকোনো ছবি তৈরি করবে তাদেরকে জাহান্নামে বলা হবে সেই ছবি বা মূর্তি তে রুহু দিতে কিন্তু সেই ব্যক্তি তা কখনোই পারবে না এর জন্য পেতে হবে শাস্তি। 

আরো পড়ুনঃ অনলাইনে ব্যাটিং হারাম নাকি হালাল - ইসলামে বাজি ও লটারি 

দুনিয়াতে যারা ভালো কথা শুনতো কিন্তু আমল করতো না তাদের কানে গলিত গরম সিসা ঢেলে দেওয়া হবে। গরম তেল এর ভিতর চুবানো হবে।এই দুনিয়ার থেকে ৭০ গুন  বেশি উতপ্ত আগুনে নিক্ষেপ করা হবে।এছাড়াও আরো অনেক শাস্তি হবে জাহান্নামে যার কোনো শেষ নাই। আশা করি বুঝতে পারলেন জাহান্নামের আজাব কেমন হতে পারে বা হবে। 

জাহান্নামের খাবার

জাহান্নামের বর্ণনা করতে গেলে বলা যায় জান্নাতে যেমন খাবার দেওয়া হবে তেমনি জাহান্নামে ও খাবার দেওয়া হবে  জান্নাতের খাবার হবে সুস্বাদু কিন্তু জাহান্নামের এমন খাবার হবে যা আগুন এর মতো গরম বিষের চেয়েও বিষাক্ত। জাহান্নামের খাবার এর নাম হলো দরি এই খাবার এমন একটা খাবার যেটা খাওয়াও যাবে না গিলাও যাবে না এতো পরিমাণ গরম কিন্তু খুদার জ্বালায় ওটাই খেয়ে ফেলবে জাহান্নামীরা। 

জাহান্নামের আরেকটি খাবার হলো জাক্কুম যেটা জাহান্নামের আগুন এর ছোয়া লেগে তৈরি হওয়া গাছের ফল যেই ফল অনেক বিষাক্ত এবং দুর্গন্ধ যুক্ত হবে সেটা যদি দুনিয়াতে ফেলা হয় তাহলে দুনিয়ার সমস্ত মানুষ ওই দুর্গন্ধ জাক্কুম এর গন্ধে মারা যাবে ওই কাটা যুক্ত জাক্কুম জাহান্নামীদের দেওয়া হবে যা তারা খুদার জ্বালায় সেটাই খেয়ে ফেলবে। জাহান্নামে পানীয় হিসেবে পঁচা রক্ত এবং পুঁজ দেওয়া হবে।যেগুলো এতোই দুর্গন্ধ হবে তবুও পিপাসার জ্বালায় সেটাই খেয়ে ফেলবে আশা করি বুঝতে পারলেন জাহান্নামের আজাব এবং জাহান্নামের খাবার কেমন হবে। 

জাহান্নামের ছবি

জাহান্নাম ছবি

জাহান্নাম ছবি

জাহান্নাম ছবি

জাহান্নামের দরজার নাম সমূহ

উপরে আপনারা জানছেন জাহান্নামের স্তর সাতটি  জাহান্নামের স্তর জাহান্নামের নাম এবং জাহান্নামের দরজার নাম সব একই জাহান্নামের দরজা সমূহ ৭ টি নাম গুলো নিচে দেওয়া হলো।

১। জাহান্নাম - যেটা অকৃতজ্ঞ এবং নাফরমান ব্যক্তিকে শাস্তি দেওয়ার জন্য তৈরি করা হয়েছে। 

২। হুত্বামা - যেটা হলো উত্তপ্ত আগুনের শিখা। 

৩। জাহীম - যেটা হলো অতিরিক্ত তীব্র আগুন।

আরো পড়ুনঃ ঘরে পুতুল রাখা যায় জায়েজ কিনা বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন

৪। সাক্বার - যেটাতে ঝলসিয়ে গলিয়ে দেওয়া হবে।

৫। সাঈর - এটিও একটি লেলিহান অগ্নশিখা

৬। লাযা - এটিও একটি জাহান্নামের দরজা এখানে অনেক শাস্তি হবে।

৭। হাবিয়াহ - এটা হলো জাহান্নামি দের সর্বোচ্চ শাস্তির জায়গা। 

জাহান্নামের বর্ণনাঃ শেষ কথা  

প্রিয় বন্ধুরা আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করা হয়েছে জাহান্নামের স্তর কয়টি, জাহান্নামের নাম সমূহ,জাহান্নামের বর্ণনা, জাহান্নামের বয়ান,জাহান্নামের আগুন,জাহান্নামের আজাব,জাহান্নামের খাবার, জাহান্নামের ছবি এবং জাহান্নামের দরজার নাম সমূহ আশা করছি আজকের জাহান্নামের বর্ণনা  জাহান্নামের আগুন এবং জাহান্নামের আজাব এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা জাহান্নাম সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। তাই আমাদের আজকের এই পোস্ট টি কেমন লাগলো তা কমেন্ট করে জানাতে পারেন এবং এরকম আরো পোস্ট পড়তে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ফলো করুন।২৩৩৫৭  

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url