তাকওয়া অর্থ কি - তাকওয়া ইংরেজি বানান

তাকওয়া অর্থ কি এই বিষয়ে অনেকেই জানেন না মুসলমান হিসেবে আমাদের এই সকল বিষয় জেনে রাখা প্রয়োজন। তাকওয়া অর্থ কি এই বিষয়ে অনেকে জানতে চান তাই আজকের আর্টিকেলে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক তাকওয়া অর্থ কি।

তাকওয়া অর্থ কি

তাকওয়া অর্থ কি তাকওয়া ইংরেজি বানান এবং তাকওয়া সম্পর্কে আরও অনেক কিছু আলোচনা করা হবে আজকের এই আর্টিকেলে তাই যারা এ বিষয়ে জানতে চান তারা আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন।

পেজ সূচিপত্রঃ তাকওয়া অর্থ কি - তাকওয়া ইংরেজি বানান 

তাকওয়া অর্থ কি

তাকওয়া শব্দের অর্থ বিরত থাকা বেঁচে থাকা ভয় করা নিজেকে রক্ষা করা। ব্যবহারিক অর্থে পরহেজগারী খোদাভীরু আত্মশুদ্ধি ইত্যাদিকে বোঝায়। ইসলামী পরিভাষায় বলা যায় আল্লাহর ভয়ে যাবতীয় অন্যায় অত্যাচার এবং পাপ কাজ থেকে বিরত থাকাকে তাকওয়া বলা হয়। অন্য কথায় সকল ধরনের পাপাচার থেকে নিজেকে রক্ষা করা কুরআন সুন্নাহর আলোকে জীবন পরিচালনা করাকে তাকওয়া বলে। আর যিনি তাকওয়া অবলম্বন করেন তাকে বলা হয় মুত্তাকী।

আরো পড়ুনঃ সূরা ইয়াসিনের ফজিলত - সুরা ইয়াসিন এর ফজিলত সম্পর্কিত হাদিস

মহান আল্লাহকে ভয় করে সকল পাপ কাজ থেকে বিরত থাকার অর্থ অনেক ব্যাপক। আল্লাহ আমাদের সৃষ্টিকর্তা এবং আল্লাহ আমাদের সকল কাজকর্ম দেখেন এবং হিসাব রাখেন হাশরের ময়দানে তিনি আমাদের সকলের বিচার নেবেন। আর আল্লাহর বিচার এবং শাস্তির ভয়ে যে ব্যক্তি সকল পাপ কাজ অন্যায় অত্যাচার থেকে বিরত থাকবে সেই ব্যক্তি হবে আসল মুত্তাকী এবং তার জন্য রয়েছে জান্নাত। মহান আল্লাহ কুরআনে বলেছেন-যে ব্যক্তি আল্লাহর সামনে দণ্ডায়মান হওয়ার ভয় করবে ও কুপ্রবৃত্তি থেকে বেঁচে থাকবে তার স্থান হবে জান্নাত। (সূরা আন নাযিয়াত, আয়াত ৪০-৪১) 

তাকওয়া অর্জনের উপায় pdf

তাকওয়া শব্দের অর্থ বিরত থাকা বেঁচে থাকা ভয় করা নিজেকে রক্ষা করা। মহান আল্লাহ আমাদের সৃষ্টি করেছেন শুধুমাত্র তার এবাদত এর জন্য। তাকওয়া অর্জনের ফলে সকল খারাপ কাজ অন্যায় অত্যাচার থেকে নিজেকে বিরত রাখা যায় আর মহান আল্লাহ এই সকল লোককে বেশি পছন্দ করেন এবং তাদের জন্য রয়েছে জান্নাত। আল্লাহ তা'আলা বলেন যারা ঈমান আনলো এবং তাকওয়া অর্জন করল তারা আল্লাহর বন্ধু তাদের কোন ভয় নেই। তাকওয়া অর্জনের উপায় হল

১. আল্লাহর প্রতি ভয়ঃ আল্লাহর কঠিন শাস্তির ভয়ে যে ব্যক্তি তাকওয়া অর্জন করবে এবং সকল অন্যায় অত্যাচার পাপ কাজ থেকে বিরত থাকবে তার জন্য রয়েছে জান্নাত। আল্লাহর ভয়ে সকল অন্যায় অত্যাচার পাপ কাজ থেকে বিরত থাকলেই তাকওয়া অর্জন হবে।

২. কোরআন অনুযায়ী আমল করাঃ আল্লাহ সকল মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ কিতাব আল কোরআন পাঠিয়েছেন যে ব্যক্তি কোরআন অনুযায়ী আমল করবে এবং ভালো পথে চলবে সেই ব্যক্তি সর্বোত্তম।

৩. আল্লাহর সৃষ্টি নিয়ে চিন্তাঃ মহান আল্লাহর যে এই পৃথিবীতে কত কিছু সৃষ্টি করেছেন এবং কত সুন্দর করে সৃষ্টি করেছেন সেগুলো নিয়ে চিন্তা করলে অন্তরে তাকওয়া সৃষ্টি হয়।

৪. অল্পতে তুষ্ট থাকাঃ আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন সেজন্য যারা অল্পতে তুষ্ট থাকেন এবং কোনো অভিযোগ না করেন তাদের ভিতর সৃষ্টি হয় তাকওয়া।

৫. শেষ দিবসের জন্য সদা প্রস্তুতিঃ যে ব্যক্তি আল্লাহর প্রতি ভয় রাখে এবং শেষ দিবসের জন্য সদা প্রস্তুত থাকে তার ভেতর সৃষ্টি হয় তাকওয়া।

আরো পড়ুনঃ রবিউল আউয়াল মাসের ১২ টি ফজিলত ও আমল এর বিস্তারিত

যে ব্যাক্তি তাকওয়া অর্জন করলো তার জন্য রয়েছে বিশাল পুরস্কার কারণ যে ব্যক্তি তাকওয়া অর্জন করে মহান আল্লাহ তাকে অনেক ভালোবাসেন তাই আমাদের সকলের তাকওয়া অর্জন করা প্রয়োজন। আশা করছি বুঝতে পারছেন তাকওয়া অর্জনের উপায় কি।

তাকওয়ার সোপান কয়টি ও কি কি

তাকওয়া অর্থ কি তা ইতোমধ্যে জানতে পেরেছেন তাকওয়ার সোপান সম্পর্কে এই অংশে আলোচনা করা হবে। তাকওয়া অর্জনের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ করা যায়। আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস অল্পতে তুষ্ট থাকা এবং যে কোনো অন্যায় অত্যাচার এবং পাপ কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখা হলো তাকওয়া।তাকওয়ার সোপান হল আল্লাহকে না দেখে বিশ্বাস করা, আল্লাহর সৃষ্টি নিয়ে চিন্তা করা, শেষ দিবসের জন্য সদা সর্বদা প্রস্তুত থাকা, বিশ্ব নবীর দেখানো পথে চলা এবং আদর্শ মানা, কোরআনের আলোকে জীবন গড়া।

তাকওয়ার সোপান হলো রমজান মাসে রোজা রাখা এতে তাকওয়া অর্জন হয়। সিয়াম পালনের ফলে সকল খারাপ কাজ থেকে বিরত থাকা যায়। তাই আমাদের সকল নবী-রাসূলগণের আদেশ-নিষেধ মেনে চলতে হবে আর এতে করে তাকওয়া অর্জন হবে এবং আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ করা যাবে।

তাকওয়া অর্জনের দোয়া

তাকওয়া অর্জন করা হলো মানব জীবনের জন্য সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ কাজ তাকওয়া অর্জনের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ করা যায় এবং ইহকাল ও পরকাল দুটোই ভালো হয়। আমাদের তাকওয়া সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে এবং তাকওয়া অর্জনের দোয়া জানতে হবে চলুন জেনে নিন তাকওয়া অর্জনের দোয়া কি। তাকওয়া অর্জনের দোয়া হলো-

হযরত যায়েদ বিন আরকাম (রা) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন রাসূলুল্লাহ (সা) এই দোয়াটি পাঠ করতেন,

اللهم آتي نفسي التقوى- ، وجكها-أنت خيرو مان زكاها-أنت عليوها- ومولها

আল্লাহুম্মা আতি নাফসী তাক্বওয়াহা-, ওয়া যাক্কিহা-আনতা খইরু মান যাক্কাহা-আনতা আলিয়্যুহা- ওয়া মাওলাহা। (সহিহ মুসলিম হাদীস নং- ২৭২২)

আরো পড়ুনঃ জিলহজ মাসের ১২ টি ফজিলত - জিলহজ মাসের গুরুত্ব

অর্থ - হে আল্লাহ আপনি আমার নফসকে তাকওয়া দান করুন যে সকল গুনাহ থেকে পুত পবিত্র করুন, আপনিই সর্বোত্তম পবিত্রতা দানকারী, এবং আপনিই তার অভিভাবক ও গার্ডিয়ান।

তাকওয়া ইংরেজি বানান 

তাকওয়া অর্থ কি তাকওয়া শব্দের অর্থ বিরত থাকা বেঁচে থাকা ভয় করা নিজেকে রক্ষা করা। ব্যবহারিক অর্থে পরহেজগারী খোদাভীরু আত্মশুদ্ধি ইত্যাদিকে বোঝায়। ইসলামী পরিভাষায় বলা যায় আল্লাহর ভয়ে যাবতীয় অন্যায় অত্যাচার এবং পাপ কাজ থেকে বিরত থাকাকে তাকওয়া বলা হয়। তাকওয়ার ইংরেজি বানান কি অনেকেই জানেন না যারা তাকওয়ার ইংরেজি বানান জানতে চান তারা জেনে নিন তাকওয়া ইংরেজি বানান।

তাকওয়া ইংরেজি বানান হলোঃ Taqwaa

আশা করছি বুঝতে পারছেন তাকওয়া ইংরেজি বানান কিভাবে লিখবেন

তাকওয়া কিসের সঞ্জীবনী শক্তি

তাকওয়া অর্থ কি তা ইতোমধ্যে জেনে গেছেন তাকওয়া অর্জন করা ইমান ও আমলের সঞ্জীবনী শক্তি তাকওয়া অর্জনের জন্য যে সকল কাজ আছে সেগুলো করতে হবে তাহলে তাকওয়া অর্জন করা যাবে এবং ঈমানের সঞ্জীবনী শক্তি বৃদ্ধি পাবে তাকওয়া অর্জনের মাধ্যমে সঞ্জীবনী শক্তি বৃদ্ধি করার জন্য যে সকল কাজ করবেন।

  • ফরজ পালন করা
  • কুরআন বুঝা এবং কুরআন পড়া এবং সে অনুযায়ী আমল করা
  • সাহাবীদের জীবনী পড়া
  • রাসুলের হাদিস ও সিরাত পড়া 
  • এবং বেশী বেশী তওবা ইস্তেগফার পাঠ করা

তাকওয়া নিয়ে কবিতা

উপরের অংশ গুলো পড়ে আপনারা ইতোম্যধ্যেই জেনে ফেলেছেন তাকওয়া অর্থ কি তাকওয়া ইংরেজি বানান এবং তাকওয়া সম্পর্কে আরও বিভিন্ন তথ্য এবার আসুন জেনে নেয়া যাক তাকওয়া নিয়ে কবিতা।

তাকওয়া

- এমরান হোসেন

লাভ কি তোমার ইবাদতে

হও না যদি তাকওয়াবান

লাভ হবে না ঢেড় আমলে

না থাকিলে নিখুঁত ইমান

খোদার ভয় ছাড়া তুমি 

যতই কর পরহেজগারী

লাভ হবেনা হিসাব কালে

লোক দেখানো দীনদারী

তাকওয়াবানরাই মুত্তাকী  হয়

খোদার কাছে পায় সম্মান 

আল্লাহ তাদের বাসেন ভালো

পাক কোরআনে তার প্রমাণ।

সোর্সঃ bangla kobita.com

তাকওয়া অর্থ কি -  তাকওয়া ইংরেজি বানানঃ শেষ কথা 

প্রিয় পাঠক আজকের এই আর্টিকেলে তাকওয়া অর্থ কি তাকওয়া ইংরেজি বানান তাকওয়া অর্জনের উপায় তাকওয়া অর্জনের দোয়া এবং তাকওয়া সম্পর্কে আরও অনেক কিছু বিষয় আলোচনা করা হয়েছে আপনি যদি এই আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়ে থাকেন তাহলে তাকওয়া সম্পর্কে অনেক কিছু জেনে গেছেন।

এরকম আরো নতুন নতুন আর্টিকেল আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত পাবলিশ করা হয় তাই এরকম আরো নতুন নতুন বিষয় জানতে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ। ২৩৩৫৭ 

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url